পেটে গামছা বেঁধে অভিনব বিক্ষোভ পর্যটন ব্যাবসায়ীদের

0
31

অভিজিত চক্রবর্তী, আলিপুরদুয়ার: কবি সুকান্ত লিখেছিলেন “ক্ষুধার রাজ্যে পৃথিবী গদ্যময় পূর্ণিমার চাঁদ যেনো ঝলসানো রুটি” ক্ষুধা মানেনা কোনো অজুহাত,মানেনা কোনো বারণ, সে বোঝেনা লক ডাউন বোঝেনা ওমিক্রন।সে বোঝে খিদে পেলে পেটে ভাত চাই। ওমিক্রনের দাপটে সেই পেটে ভাতের জোগাড় করাও দায় হয়ে দাঁড়িয়েছে জেলার পর্যটন শিল্পের সঙ্গে জড়িত মানুষদের। ফলে একপ্রকার বাধ্য হয়েই পেটে গামছা বেঁধে আলিপুরদুয়ার প্রশাসনিক ভবন ডুয়ার্সকন‍্যার সামনে বৃহস্পতিবার প্রতীকী অবস্থান বিক্ষোভে সামিল হল আলিপুরদুয়ার জেলার পর্যটন ব‍্যবসায়ীরা । কোভিড স্ব‍্যাস্থবিধি মেনে ৫০% লোক নিয়ে পর্যটনকেন্দ্র গুলি খুলে দেবার দাবি জানালো পর্যটন ব‍্যবসায়ীরা । ওমিক্রন ও তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার আশঙ্কায় গত তিন জানুয়ারি থেকে রাজ‍্য সরকার বিধিনিষেধ লাঘু করেছে আর এর জেরে বন্ধ রাজ‍্যের সমস্ত পর্যটন কেন্দ্র। ভরা টুরিজম মরশুমে পর্যটন কেন্দ্র বন্ধ থাকায় খুব সমস্যায় আলিপুরদুয়ার জেলার পর্যটন ব্যাবসার সঙ্গে জড়িত মানুষেরা। এই এলাকার লজ ব‍্যবসায়ী,জিপসি চালক সবাই বর্তমানে খুব সমস্যায় পড়েছে। কেননা এই সময় পর্যটক আসে আর পর্যটন ব‍্যবসায়ীরা এই সময় কিছুটা বাড়তি আয়ের মুখ দেখে‌ । পর্যটন ব‍্যবসায়ীদের দাবী অন‍্যান‍্য ক্ষেত্র যেমন ৫০শতাংশ লোক নিয়ে চালু আছে। তেমনি কোভিড স্ব‍্যাস্থবিধি মেনে ৫০ শতাংশ লোক নিয়ে খুলে দেওয়া হক পর্যটন কেন্দ্র গুলি। এই দাবিতে এদিন আলিপুরদুয়ার জেলার জলদাপাড়া চিলাপাতা সহ বিভিন্ন এলাকার পর্যটন ব‍্যবসায়ীরা ডুয়ার্সকন‍্যা সামনে বিক্ষোভে সামিল ছিল ।

Facebook Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here