পুজোতে সরকারি কর্মীদের জন্য সুখবর

0
47

পুজোতে সরকারি কর্মীদের জন্য সুখবর দিলো রাজ্য সরকার ।  আর মাত্র  দুই দিন পরই দুর্গাপুজোর আনন্দে মেতে উঠবে বাংলা ও বাঙালি। তাই করোনা আবহেও খুশির হাওয়া বাংলার আকাশে-বাতাসে। আর এরই মধ্যে এল সরকারি কর্মীদের জন্য খুশির খবর। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার পুজোর মরশুমে সরকারি কর্মীদের জন্য খুশির বার্তা দিল। উৎসবের মরশুমে টানা ১৬ দিন ছুটি ঘোষণা করল নবান্ন। ৮ অক্টোবর অর্থাৎ শুক্রবার অফিস ছুটির পরই টানা ১৬ দিন ছুটি কাটাবেন রাজ্য সরকারি কর্মচারীরা। ৯ অক্টোবর শনিবার থেকে ছুটি শুরু হচ্ছে। আবার অফিস খুলবে একেবারে লক্ষ্মীপুজোর পর। ১১ অক্টোবর থেকে দুর্গাপুজো শুরু। তার আগে শনিবার ও রবিবার পরপর দুদিন ছুটি পেয়ে যাচ্ছেন সরকারি কর্মীরা।

 

দুর্গাপুজো ও লক্ষ্মীপুজোর মাঝেও শনিবার ও রবিবার পড়ছে। তারপর মাঝের দু-দিনও আগে থেকেই ছুটি ঘোষণা করেছিল রাজ্য সরকার। দুর্গাপুজো থেকে লক্ষ্মীপুজো পর্যন্ত ছুটি থাকত এমনিতেই। এবার লক্ষ্মীপুজোর পরও চারদিন ছুটি থাকছে। তার মধ্যে দুদিন শনি ও রবিবার পড়ে যাচ্ছে। ২৫ অক্টোবর সোমবার থেকে ফের অফিস শুরু হচ্ছে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের।

 

১১ অক্টোবর থেকে ২২ অক্টোবর পর্যন্ত সরকারি কর্মীদের ছুটি ছিল। তারপর দুদিন অর্থাৎ ২৩ ও ২৪ অক্টোবর শনি ও রবিবার। ফলে এক শনি ও রবিবার থেকে শুরু হয়ে আরও এক শনি ও রবিবার পর্যন্ত টানা ১৬ দিনের ছুটি মিলছে এবার। সেইমতো পরিকল্পনা সাজাতে পারেন সরকারি কর্মীরা।

 

এবার  মহালয়ার পর থেকেই পুজো উদ্বোধন শুরু করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পুজোর পর চারদিন প্রতিমা নিরঞ্জনের জন্য বরাদ্দ করা হয়েছে কলকাতা পুলিশের পক্ষ থেকে। ১৫ অক্টোবর থেকে ১৮ অক্টোবর পর্যন্ত প্রতিমা নিরঞ্জন করা যাবে বলে জানানো হয়েছে রাজ্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে। লক্ষ্মীপুজোর বিসর্জনের জন্যও সময় বরাদ্দ রেখে ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

 

রাজ্য সরকার ঘোষণা মতো করোনা বিধি আরোপ করা হয়েছিল ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত। সেই বিধি নিষেধ পুজোর মধ্যেও জারি থাকবে। শুধু ১০ থেকে ২০ অক্টোবর পর্যন্ত রাত্রিকালীন কারফিউ তুলে নেওয়া হচ্ছে। সকলে পুজোর দিনগুলিতে রাতের দিকেও ঘুরে বেড়াতে পারবে।

 

Facebook Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here