ভাঙ্গন কবলিত এলাকা পরিদর্শন করে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে অভিযোগের আঙুল তুললেন সেচ দফতরের প্রতিমন্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন 

0
30

নয়াজামানা,মালদহঃ গঙ্গার ভাঙন ব্যাপক আকার নিল মালদহের কালিয়াচক ৩ নম্বর ব্লকের বীরনগর ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের একাধিক এলাকায়।সোমবার ভাঙন কবলিত এলাকা পরিদর্শনে গিয়ে সরাসরি ফরাক্কা ব্যারেজ কর্তৃপক্ষ তথা কেন্দ্রীয় সরকারের দিকে অভিযোগের আঙুল তোলেন সেচ দফতরের প্রতিমন্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন ও তৃণমূল কংগ্রেস জেলা সভাপতি রহিম বক্সি।মন্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন বলেন,গঙ্গা ভাঙন রোধে উদাসীন কেন্দ্রীয় সরকার।অবিলম্বে ভাঙন রোধের কাজ না হলে আন্দোলনে নামবো।যতদূর চোখ যায় শুধুই ধ্বংসের ছবি। মালদহের বৈষ্ণবনগরের বীরনগর ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের চিনাবাজার, সরকারটোলা, ভীমাগ্রাম, নয়াহাটের বিস্তীর্ণ এলাকা এখন গঙ্গার গ্রাসে।ভাঙনের জেরে গত কয়েকদিনে ভিটেমাটি, ঘরদোর-সর্বস্ব খুইয়েছেন প্রায় পাঁচশো বাসিন্দা। ভাঙতে চলেছে বীরনগরের একটি তিনতলা ভবনের হাইস্কুলও। সব হারিয়ে পথে বসেছেন এলাকার বহু বাসিন্দা।  সব হারিয়ে কেউ আশ্রয় নিয়েছেন স্থানীয় চামাগ্রাম হাইস্কুলে। কারও আশ্রয় খোলা আকাশের নীচে। ঘটনাস্থল পরিদর্শনে সোমবার সেখানে পৌঁছান সেচ দফতরের প্রতিমন্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন, জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি আবদুর রহিম বক্সি ও মালদহের জেলাশাসক রাজর্ষি মিত্র। মন্ত্রী ও তৃণমূল জেলা সভাপতি, ভাঙনের জন্য সরাসরি তোপ দাগেন ফারাক্কা ব্যারেজ কর্তৃপক্ষ তথা কেন্দ্রীয় সরকারের দিকে। অবিলম্বে ভাঙন রোধের কাজ শুরু না হলে আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তারা।রাজনৈতিক তরজা শুরু হলেও গঙ্গার গ্রাসে সর্বস্ব খোয়ানো মানুষগুলো ভালোই জানেন তাদের নিয়তি। তাই নিয়তিকে দোষ দেওয়া ছাড়া আর কিছু করার নেই তাদের।

Facebook Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here