আমরা দুজন

0
27

কবি শ্যামল রায়
এখন সেই ঘরের চাদরটা একাই!
জানালা টা খুলছে না কেউ?
বাথরুমের জল টা কি নোংরা হয়ে গেছে?
এখন বড্ড একলা আমরা দুজন।
হাতে হাত পড়ে না, চোখে চোখ
দু ঠোট এগিয়ে দেখছি না কেউ
এখন অনেকটা দূরে আমরা
কতটা আর বলা যায় টেলিফোনে?
এখন সেইঘরের চাদরটা কি একাই
ওর সময় খুব কম
বাড়িতে এখন স্বামী পাশেই থাকে
ছেলের পড়া, নিত্য নতুন রান্না করা
ফাঁকা সময় একদম কম
তবুও ওভাবে আমিও ভাবি
আমরা বড্ড একলা দুজন থেকে ।
আমাদের সেই খুব পরিচিতি ঘরটা
কেমন আছে? খাটের চাদর টা?
ঘরের জানালাটা কেউ খোলে?
বিছানার বালিশ কোলবালিশ কেমন আছে?
খুব কষ্ট হয় ওরা বড্ড একা!
শুধুই আমরা দুজন নেই।
সময় কম গোপনে খোঁজ নিতে হয় নির্জনে–
ঠোঁটে আঁকা মৃদু আওয়াজ
কতটা আর যায় টেলিফোনে?
ভিড় ঠেলে এগোনো এখন বন্ধ
লঞ্চ ঘাট টাও অনেকটা দূরে
ট্রেনের আওয়াজ একদম নেই
জীবনের সঙ্গে এলোমেলো সব কিছু।
অল্প সময়ের জন্য নির্জন ঘর এখন বড্ড একলা
শুধুই নেই আমরা দুজন।
খাটের চাদরটাও বড্ড একা জানিনা কেমন আছে?
শুধুই নেই আমরা দুইজন।
চাদরেনেই আমাদের শরীরটা
দরজায় খিল আটা
আশা-আকাঙ্ক্ষা ধরাছোঁয়ার বাইরে
সেই ঘরের জানালা টা খুলছে না কেউই
খাটের চাদরটা পরিপাটিই আছে
নেই শুধু আমরা দুইজন
শুধুই আমরা দুইজন
এখন শুধুই এলোমেলো
শুধুই এলোমেলো আমরা দুজন।

Facebook Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here